মাইক্রো অ্যাকাউন্ট নাকি স্ট্যান্ডার্ড অ্যাকাউন্টে ট্রেড করা উচিৎ ? – ট্রেডিং আইডিয়া

অধিকাংশ ট্রেডার সবচেয়ে বেশী যেই সমস্যায় পড়েন ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট খোলার সময়, তা হল তাদের মাইক্রো অ্যাকাউন্ট ওপেন করা উচিত? নাকি স্ট্যান্ডার্ড ওপেন করা উচিত। ফরেক্স মার্কেটে আমরা প্রতি পিপস মুভমেন্টে লাভ করতে পারি। অর্থাৎ প্রাইস ১.১৭১০ থেকে ১.১৭২০ এ গেলে আমাদের ১০ পিপস লাভ বা লস হবে। লট/ভলিউমের মাধ্যমে আমরা নির্ধারণ করে দিবো যে প্রতি পিপস আমাদের অনুকূলে বা প্রতিকূলে গেলে আমাদের কি পরিমান লাভ বা লস হবে।

পূর্বে ফরেক্স নির্দিষ্ট সংখ্যক লট অনুসারে ট্রেড হল। ১টি লটের স্ট্যান্ডার্ড সাইজ হল ১০০,০০০ ইউনিট। এই ১ স্ট্যান্ডার্ড লট বা ১০০,০০০ ইউনিটের একটি ট্রেড ওপেন করলে প্রতি পিপস পরিবর্তনের জন্য ১০ ডলার করে পরিবর্তন হয়। এতো বড় লট বা ভলিউমে ট্রেড করা সব ট্রেডারদের পক্ষে সম্ভব হয় না। তাই ব্রোকাররা ট্রেডারদের সুবিধার্থে স্ট্যান্ডার্ড লটের অ্যাকাউন্টের পাশাপাশি মিনি, মাইক্রো এবং ন্যানো লটের অ্যাকাউন্টে ট্রেড করার সুবিধা প্রদান করা শুরু করে। কিন্তু মিনি আর ন্যানো লট সাইজের অ্যাকাউন্ট খুব কম ব্রোকারই প্রদান করে এবং জনপ্রিয়ও নয়। মূলত ২ ধরনের লট সাইজের অ্যাকাউন্ট ট্রেডারদের মধ্যে জনপ্রিয়ঃ

  • স্ট্যান্ডার্ড লট অ্যাকাউন্ট
  • মাইক্রো লট অ্যাকাউন্ট

এই অ্যাকাউন্টগুলোর মধ্যে আসল পার্থক্য হল লট সাইজের। স্ট্যান্ডার্ড অ্যাকাউন্টে ১ লটে ১০০,০০০ ইউনিট ভলিউম ট্রেড করা হয়। মিনি অ্যাকাউন্টে তার ১০ ভাগের এক ভাগ। মাইক্রো অ্যাকাউন্টে মিনি অ্যাকাউন্টের ১০ ভাগের ১ ভাগ। আর ন্যানো অ্যাকাউন্টে মাইক্রো অ্যাকাউন্টের ১০ ভাগের এক ভাগ। অর্থাৎ, মাইক্রো অ্যাকাউন্ট স্ট্যান্ডার্ড অ্যাকাউন্টের ১০০ ভাগের ১ ভাগ। তবে মেটাট্রেডার বেজড ব্রোকারে আপনি ইউনিট হিসাব না করে শুধু লট বা ভলিউম হিসাব করেই সহজে ট্রেড করতে পারবেন। স্ট্যান্ডার্ড এবং মাইক্রো অ্যাকাউন্টে বিভিন্ন লট অনুযায়ী পিপস ভ্যালুর একটি চার্ট নিচে দেয়া হল।
কোন ধরনের অ্যাকাউন্টে ট্রেড করবো?

অধিকাংশ ব্রোকার আপনাকে সর্বনিম্ন ০.০১ লটে ট্রেড করতে দিবে। অর্থাৎ, স্ট্যান্ডার্ড লট ব্রোকারে আপনি সর্বনিম্ন পিপ ভ্যালু নিতে পারবেন ১০ সেন্ট। আর মাইক্রো লট ব্রোকারে আপনি সর্বনিম্ন পিপ ভ্যালু নিতে পারবেন ০.০০১ ডলার, যা কিনা ১ সেন্ট এর ১০ ভাগের ১ ভাগ। সুতরাং আপনার ক্যাপিটাল যদি কম হয়ে থাকে, তাহলে আপনি মাইক্রো লট অ্যাকাউন্টে কম রিস্ক নিয়ে ট্রেড করতে পারবেন। আর ক্যাপিটাল বেশি হলে স্ট্যান্ডার্ড অ্যাকাউন্টে ট্রেড করাই সুবিধাজনক। আপনি যদি সাধারনত ১০ সেন্ট প্রতি পিপস ভ্যালু এর নিচে ট্রেড না করেন তবে স্ট্যান্ডার্ড অ্যাকাউন্টে ট্রেড করতে পারেন। সাধারনত ১০০০$ এর নিচে ক্যাপিটাল হলে মাইক্রো অ্যাকাউন্টে ট্রেড করাই ভালো।
শুধু যে আপনি ১ লট, ০.১ লট অথবা ০.০১ লটে ট্রেড করতে পারবেন তাই নয়, আপনি চাইলে ২.৫ লট, ১.৩ লট এরকম কাস্টম লটেও ট্রেড করতে পারেন, এবং তা সব ধরনের লট সাইজের অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। বেশিরভাগ ব্রোকার একটি ট্রেডে সর্বোচ্চ ১০০ লট পর্যন্ত সাইজের ট্রেড করতে দেয়।
কিভাবে বুঝবো আমার ব্রোকার কোন ধরনের অ্যাকাউন্ট প্রদান করে?
প্রায় সকল ব্রোকারই স্ট্যান্ডার্ড অ্যাকাউন্ট প্রদান করে থাকে। কিছু কিছু ব্রোকার ট্রেডারদের সুবিধার্থে এর পাশাপাশি মাইক্রো অ্যাকাউন্টে ট্রেড করার সুযোগ দেয়। যেমনঃ Exness ব্রোকারটিতে স্ট্যান্ডার্ড এবং মাইক্রো উভয় ধরনের অ্যাকাউন্ট খোলা যায়। আপনি অ্যাকাউন্ট খোলার সময় বা ব্রোকারের ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্টের ধরন সংক্রান্ত পেইজ থেকে জানতে পারবেন আপনি যেই ব্রোকারে ট্রেড করতে চান তারা কি কি ধরনের লট সাইজের অ্যাকাউন্ট সমর্থন করে। এছাড়া আপনার পার্সোনাল অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার কিংবা লাইভ চ্যাটে জিজ্ঞেস করে এ বিষয়ে জানতে পারবেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.