কিভাবে প্রাইস অ্যাকশন ট্রেডিং স্ট্রাটেজি তৈরী করবেন ?

FBS VPS

ফরেক্স মার্কেট একটা নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে উঠানামা*করে। কখনো মার্কেট আপ ট্রেন্ড এ থাকে আবার কখনো মার্কেট ডাউন ট্রেন্ড এ থাকে। বড় টাইম ফ্রেম খেয়াল করলে আপ ট্রেন্ড এ থাকার সময় হঠাত করেই মার্কেট ডাউন ট্রেন্ড এ চলে যায় না আবার ডাউন ট্রেন্ড এ থাকার সময় হঠাত করেই মার্কেট আপ ট্রেন্ড এ যায় না। আপ ট্রেন্ড এ থাকার সময় একটা নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে আপ-ডাউন হয় আবার ডাউন ট্রেন্ড এ থাকার সময় ও একটা নির্দিষ্ট নিয়ম মেনেই আপ-ডাউন হয়। যা তার এক ধাপ ছোট টাইম ফ্রেম এ স্পষ্ট বোঝা যায়। মার্কেট সবসময় একটা ছন্দে Rhythm/রিদম এ চলাফেরা করে। কখনো এই মুভমেন্ট গুলো খুব স্পষ্ট হয় যেমন NZDUSD আবার কখনো এই মুভমেন্ট গুলো অস্পষ্ট হয়। যেমন GBPUSD (কেউ আবার এইটাকে নেগেটিভ নিয়েন না। সব পেয়ার ই এই নিয়মে চলে বাট কিছু পেয়ার খুব স্পষ্ট আর কিছু পেয়ার অস্পষ্ট। আমার কাছে NZDUSD এর মুভ স্পষ্ট মনে হয়েছে তাই বললাম) স্পষ্ট মুভমেন্ট গুলো খুব সহজে ধরা যায় আর অস্পষ্ট মুভমেন্টগুলো বিভিন্ন টাইম ফ্রেম এনালাইজিস করে ধরতে হয়। মার্কেট কয়েকটি পয়েন্ট তৈরি করে Wave/তরঙ্গ আকারে চলাফেরা করে।
মার্কেট যখন আপ ট্রেন্ড এ থাকে তখন দুইটা পইন্ট তৈরি করে আপ হয় সে দুইটা পইন্ট হলো হায়ার হাই এবং হায়ার লো। আর মার্কেট যখন ডাউন ট্রেন্ড এ থাকে তখন আবার দুইটা পইন্ট করতে করতে নেমে আসে। আর সে দুইটা পইন্ট হলো লোয়ার হাই এবং লোয়ার লো।এই পইন্ট চারটা ধরে বুঝে ট্রেড করতে পারলে ট্রেড খুব সহজ হয়ে যায়। এই হায়ার হাই, হায়ার লো, লোয়ার হাই এবং লোয়ার লো কিভাবে কাজ করে তা জানলে ট্রেড এ অনেক কনফিডেন্স আসে। ট্রেড প্লেস করা তখন সহজ হয়ে যায়।
আপনি*যে টাইম ফ্রেম ই দেখেন না কেন ( বড় টাইম ফ্রেম দেখলে ভাল হয়) আপ ট্রেন্ড মার্কেট এ একটা নির্দিষ্ট লেভেল পর্যন্ত আপ হয়ে মার্কেট কিছুটা রিভার্স করে পুল ব্যাক করে আগের হাই লেভেলকে অতিক্রম করে যেয়ে আরেকটি হাই পইন্ট তৈরি করে।
এখন প্রথম যে লেভেল থেকে মার্কেট আপ হয়ে সর্বচ্চ বিন্দুতে গেল এইটাকে বলে হায়ার হাই আবার যে পর্যন্ত রিভার্স করে নিচ বিন্দু তৈরি করে উঠে গেল এই লেভেল টাকে বলে হায়ার লো। মনে রাখতে হবে রিভার্স করা মুভমেন্ট টুকু কখনই আগের লোয়ার লো অতিক্রম করবে না। যদি তা করে তাহলে বুঝতে হবে এখানেই আপ্ট্রেন্ড এর শেষ। এখোন কিছুটা সাইড ওয়ে করবে অথবা মার্কেট লোয়ার হাই তৈরি করে ডাউন ট্রেন্ড শুরু করবে।পর পর দুইটা হায়ার লো সমান হলে অথবা দুইটা হায়ার হাই সমান হলে মার্কেট সাইড ওয়ে শুরু করে দিবে। এই সাইড ওয়ে ততক্ষন চলবে যতক্ষন আরেকটি স্পষ্ট লেভেল তৈরি না করবে ততক্ষন। যদি এই সাইড ওয়ে এর ভেতরে স্পষ্ট হয় যে আবার হায়ার হাই, হায়ার লো তৈরি করছে তাহলে মার্কেট আপ ট্রেন্ড কন্টিনিউ করবে। আর যদি এই সাইড ওয়ে এর ভেতরে লোয়ার হাই আর লোয়ার লো তৈরি করে ফেলে তাহলে এইটা ডাউন ট্রেন্ড শুরু করবে। মার্কেট এর এই লেভেল টাই হচ্ছে সবচেয়ে ক্রিটিক্যাল। এইটা থেকে বের হতে পারলে মার্কেট আবার স্পষ্ট হয়ে যাবে।
আবার ডাউন ট্রেন্ড মার্কেট এর ক্ষেত্রে আপনি যে টাইম ফ্রেম ই দেখেন না কেন ( বড় টাইম ফ্রেম দেখলে ভাল হয়) মার্কেট একটা নির্দিষ্ট লেভেল পর্যন্ত ডাউন হয় এইটাকে বলে লোয়ার লো আবার ডাউন হবার পর মার্কেট কিছুটা রিট্রাস করে ব্যাক আসে। যেখান থেকে ব্যাক আসে ওইটা হচ্ছে লোয়ার হাই। লোয়ার হাই তৈরি করে মার্কেট আগের লোয়ার লো অতিক্রম করে ডাউন হবে ডাউন ট্রেন্ড এর ক্ষেত্রে। এভাবে কন্টিনিউ চলতে থাকবে লোয়ার লো, লোয়ার হাই করে। এভাবে চলতে চলতে একসময় আগের লোয়ার হাই আর বর্তমান লোয়ার হাই সমান হয়ে যাবে। তখন বুঝতে হবে ডাউন ট্রেন্ড শেষ করে এখোন সাইড ওয়ে করবে। আর এই সাইড ওয়ে এর ভেতরেই পরবর্তি নির্দেশনা পাওয়া যাবে, যা মার্কেট ডাউন ট্রেন্ড কন্টিনিউ করবে নাকি আপ ট্রেন্ড শুরু করবে। মার্কেট এর এই ক্রিটিক্যাল লেভেল এর সময় ধৈর্য ধরে ওয়েট করলে ফলাফল সুমিষ্ট হয়। ওয়েট এর পর ঝোপ বুঝে কোপ মারা যায়।

Related Posts